সন্তানের যখন একজন ফেভারিট প্যারেন্ট থাকে

সন্তানের যখন একজন ফেভারিট প্যারেন্ট থাকে

একটি শিশুকে বড় করতে, লালন-পালন করতে মা-বাবাকে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়। মা-বাবারা  চান তাদের সন্তানদেরকে সমানভাবে ভালোবাসা ভাগ করে দিতে, আদর-যত্ন করতে। কিন্তু প্রায়শই দেখা যায় সন্তানদের কেউ কেউ হয়তো মায়ের দিকে বেশি ঝুঁকে, আবার কেউ হয়তো বাবার দিকে। যদিও প্যারেন্টিংয়ের ক্ষেত্রে এটি খুবই স্বাভাবিক একটি বিষয়, কিন্তু এটি অপর প্যারেন্টের জন্য বেশ কষ্টদায়ক। আসলে এই ধরনের আচরণের পিছনে বেশ কিছু কারণ রয়েছে। আজকের আর্টিকেলে আমরা এই কারণগুলো, এরকম হলে আমাদের করণীয় কী – এই সবকিছু নিয়েই আমরা আলোচনা করবো। সন্তানের ফেভারিটিজম বা পক্ষপাতিত্বের কারণ বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামের খুলশীতে…

বিস্তারিত পড়ুন

কিভাবে আপনার লাজুক সন্তানটিকে আত্মবিশ্বাসী করে গড়ে তুলবেন

কিভাবে আপনার লাজুক সন্তানটিকে আত্মবিশ্বাসী করে গড়ে তুলবেন

এক মানুষ থেকে আরেক মানুষে কত পার্থক্য! চারিদিকে কত বৈচিত্রময় মানুষের আনাগোণা। প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের মতো শিশু সন্তানদের মাঝেও রয়েছে নানা রকম বৈচিত্রতা। কেউ চাপা-স্বভাবের, কেউ এক্সট্রোভার্ট, কেউ মিশুক, কেউ লাজুক ইত্যাদি। তবে যারা অতিরিক্ত লাজুক, তাদের প্রধান সমস্যা হতে পারে কনফিডেন্স বা আত্মবিশ্বাসের অভাব। যখন কোনো শিশু লাজুক হয়, তখন সে বেশ একাকীত্বে পড়ে যায়। বাবা-মা হিসেবে আপনাদের দায়িত্ব শিশু সন্তানকে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাস পাওয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়া। শিশুকে তার কথা শেষ করতে দিন অনেক বাবা-মা তাদের শিশুকে সাহায্য করার উদ্দেশে শিশুর কথার মাঝে নিজ থেকে কিছু বলে দেন। শিশুকে তার…

বিস্তারিত পড়ুন

সিবলিং রাইভালরি বা সহোদরদের মধ্যে দ্বন্দ্ব কিভাবে সামলাবেন?

সিবলিং রাইভালরি

মানুষ সবচেয়ে বেশি সময় পার করে নিজের বাড়িতে তার আপনজনদের সাথে। পারস্পরিক ভালো বোঝাপড়া সেখানে বিদ্যমান থাকলেও মাঝে মাঝে কিছু না কিছু মনোমালিন্য ঘটেই যায়। যেখানে যথেষ্ট পরিপক্ক হওয়া সত্ত্বেও বড়রা এই ধরণের সমস্যাগুলো এড়াতে পারছেন না,সেখানে বাচ্চাদের ক্ষেত্রে সবসময় শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান থাকবে এমনটা আশা করাটা কঠিনই বটে৷ সহোদরদের এই ঝগড়া, বিবাদ, দ্বন্দ্বের ইংরেজি টার্ম হলো “সিবলিং রাইভালরি” (Sibling Rivalry)। সিবলিং-এর সংজ্ঞা যারা একই মাতা-পিতার সন্তান তাদেরকে ইংরেজিতে সিবিলিং বলা হয়। একই মায়ের গর্ভ থেকে জন্ম নেওয়া ভাই-ভাই, বোন-বোন বা ভাই-বোন; সবাই সিবলিং এর আওতায় পড়ে। শুধু তা-ই নয়, সৎ…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুকে প্রশংসা করার সময় যে শব্দগুলোর ব্যবহারে সতর্ক থাকতে হবে

শিশুকে প্রশংসা করার সঠিক উপায়

শারীরিক ও মানসিক ভাবে একটি শিশু স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে বেড়ে ওঠার জন্য বাবা মা’কে হাজারো বিষয়ে মনোযোগী হতে হয়। কেবল মৌলিক চাহিদাগুলো পূরণ করাই নয় বরং শিশুকে বিভিন্ন বিষয়ে উৎসাহিত করার জন্য প্রশংসা করাও বেশ প্রয়োজন। তবে যে কোন প্রশংসা করার আগে প্রশংসার শব্দগুলো সম্পর্কে সচেতন হতে হবে। কেননা কখনো কোন প্রশংসা শিশুকে তো উৎসাহী করে তোলেই না বরং সে কাজটির প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলতে পারে।   “ প্রশংসা এক ধরণের মানসিক ওষুধ। যে কোন ওষুধের মতই “প্রশংসা” ইচ্ছেমত ব্যবহার করা যাবেনা। প্রত্যেকটি ওষুধের ব্যপারেই কিছু নিয়ম কানুন (যেমন- কতবার ও…

বিস্তারিত পড়ুন

ভুল আচরণের জন্য শিশুর কাছে ক্ষমা চাওয়া গুরুত্বপূর্ণ কেন

ভুল আচরণের জন্য শিশুর কাছে ক্ষমা চাওয়া

ভুল করে তা স্বীকার করার বা তার জন্য ক্ষমা চাওয়ার মানসিকতা আমাদের অনেকেরই থাকেনা। নিজের সন্তানের কাছে ক্ষমা চাওয়াটা অনেক বাবা-মা ই স্বাভাবিক ভাবে নিতে পারেনা। কিন্তু আপনি কি জানেন যে ভুল স্বীকার করার চর্চা এবং তার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা আপনার ও আপনার সন্তানের মধ্যকার সম্পর্কের জন্য কতোটা জরুরী? কি হতে পারে যদি ভুল আচরণের জন্য সন্তানের কাছে ক্ষমা না চান ভুল করাটা আমাদের জীবনেরই এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। আমরা সবাই কমবেশি অযাচিত কাজ করে ফেলি। অধিকাংশ পিতা-মাতা মনে করে যে সন্তানের কাছে নিজের দোষ স্বীকার করলে মনে হয় তারা ছোট…

বিস্তারিত পড়ুন

শাস্তি না দিয়েই কিভাবে শিশুকে শৃঙ্খলা শেখানো যায়

শাস্তি না দিয়েই কিভাবে শিশুকে শৃঙ্খলা শেখানো যায়

সন্তান প্রতিপালন নিঃসন্দেহে অত্যন্ত কঠিন ও মানবজীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কাজ। সব বাবা-মা কেই খুব বিচক্ষণতা, ধৈর্য ও পরিশ্রমের মাধ্যমে সন্তান মানুষ করতে হয়। সন্তান প্রতিপালনের অনেকগুলো ধাপের একটি হচ্ছে শৃঙ্খলা শেখানো। বাচ্চাকে শৃঙ্খলা অবশ্যই শেখাতে হবে, তবে তা যেন হয় গঠনমূলক ও ইতিবাচক উপায়ে। শাস্তি ও  শৃঙ্খলার মধ্যে যে সীমারেখা রয়েছে তা জানতে হবে এবং শিশুকে শাস্তি না দিয়েই কিভাবে শৃঙ্খলিত জীবনে অভ্যস্ত করা যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।  আরও পড়ুনঃ শিশুকে শৃঙ্খলা শেখাতে শাস্তি দেয়া কতটা কার্যকরী শাস্তি ছাড়াই কিভাবে শিশুকে শৃঙ্খলা শেখানো যায়? শাস্তি না দিয়েও শিশুকে শৃঙ্খলা…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুকে শৃঙ্খলা শেখাতে শাস্তি দেয়া কতটা কার্যকরী

শিশুকে শৃঙ্খলা শেখাতে শাস্তি দেয়া কতটা কার্যকরী

শিশুকে শৃঙ্খলা শেখাতে বা শাসন করতে প্রায় সব বাবা-মা শাস্তির সাহায্য নেয়। আমরা মনে করি শাস্তির ভয় দেখিয়ে শিশুকে সঠিক পথে পরিচালিত করা সম্ভব। যে ব্যাপারটি আমরা খেয়াল করিনা বা করতে চাইনা তা হলো শাস্তির ফলে শিশুর মনে যে নেতিবাচক প্রভাব পরে এবং তা তার বিকাশকে কতোখানি বিঘ্নিত করে। শাস্তি ও শৃঙ্খলার মধ্যে পার্থক্য কি? শৃঙ্খলা হচ্ছে শিশুকে আত্ম-নিয়ন্ত্রণ, আত্মবিশ্বাস ও দায়িত্ব  শেখানোর এক উপযুক্ত কৌশল। কোনটা ভাল, কোনটা ভুল, কোনটা করা যাবে, কোনটা করা যাবেনা এই সব কিছু শিশুকে সুন্দর করে রপ্ত করানোর পন্থাই হচ্ছে শৃঙ্খলা।    কোনধরনের আক্রমনাত্নক আচরণের…

বিস্তারিত পড়ুন

চাইল্ড শেইমিং এর ক্ষতিকর দিক এবং কিভাবে তা এড়িয়ে চলবেন

চাইল্ড শেইমিং

‘আজ যে শিশু পৃথিবীর আলোয় এসেছে’–সেই বিখ্যাত গানের মত করে শিশুর জন্য সাজানো বাগান উপহার দিতে আমরা কেই বা না চাই? শিশুর সুন্দর ভাবে বেড়ে ওঠার জন্য যে চমৎকার পরিবেশটির প্রয়োজন সেটা আমরা কয়জনই বা নিশ্চিত করতে পারছি? শিশুর আচরণ ঠিক করতে আমরা অনেকেই অনেক পন্থা অবলম্বন করি, যেমন- বকাবকি, মার দেয়া, ভয় দেখানো, লজ্জা দেয়া ইত্যাদি। আমাদের করা এমনই কিছু আচরণকে প্যারন্টিং এর ভাষায় অভিহিত করা হয়েছে “চাইল্ড শেইমিং” নামে। এই শেইমিং এর খুঁটিনাটি নিয়েই আজকের আর্টিকেল। চাইল্ড শেইমিং বিষয়টা আসলে কি শেইমিং শব্দটাকে লজ্জা দেয়া, অপমান করা, কটূক্তি…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুরা কেন মিথ্যা বলে এবং এ ব্যাপারে বাবা-মায়ের করণীয় কি

শিশুরা কেন মিথ্যা বলে

সন্তান প্রতিপালন সবসময়ের জন্যই কঠিন এক দায়িত্ব। বাচ্চা মানুষ করতে নানা ধরনের খারাপ-ভাল অবস্থার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। এমনই একটি সমস্যা হচ্ছে শিশুর মিথ্যা বলা। প্রায় সব বাচ্চাই কমবেশি মিথ্যা বলে এবং বাবা-মা এটা নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েন। শিশুর মিথ্যা বলার সাথে যেসব বিষয় জড়িত তা নিয়েই আজকের লেখাটি সাজানো হয়েছে। আশাকরি এই লেখাটি আপনাদের প্যারেন্টিং এ কিছু উপকারী দিক সংযুক্ত করতে সহায়ক হবে। শিশুরা কেন মিথ্যা বলে? শিশুর মিথ্যা বলার পেছনে একাধিক কারণ থাকতে পারে। বয়স-ভেদে সেই কারণ ভিন্ন ভিন্ন হয়। সাধারণত শিশুরা নিম্নোক্ত কারণে মিথ্যা বলে থাকে: শাস্তির…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুর ভুল বা ব্যর্থতায় মা বাবার প্রতিক্রিয়া কেমন হওয়া উচিত

শিশুর ভুল বা ব্যর্থতায় মা বাবার প্রতিক্রিয়া কেমন হওয়া উচিত

ভুল, ব্যর্থতা কিংবা দোষ!  এই তিনটি শব্দই আমাদের জীবনের সাথে ওতপ্রোত ভাবে মিশে আছে। বিল গেটস এর মত একজন মানুষ বলেছেন, “সফলতার উদযাপন নয় বরং ভুল থেকে শিক্ষা নেয়াটাই বেশি জরুরী।” –কিন্তু এই ভুল যদি আপনার ছোট্ট শিশুটি করে থাকে? শিশুর সেই ভুল শুধরাতে গিয়ে বাবা মা হিসেবে আপনিও আবার ভুল করে ফেলছেন না তো? শিশুর সুন্দর ভাবে বেড়ে উঠার জন্য চমৎকার একটি পরিবেশ সৃষ্টি করে দেয়া বাবা-মা হিসেবে আমাদের সকলেরই দায়িত্ব। আর তাই শিশুর ভুল, দোষ কিংবা ব্যর্থতায় শিশুর সাথে ঠিক কি ধরণের আচরণ করা উচিৎ এ নিয়ে প্রায়শই…

বিস্তারিত পড়ুন