শিশুকে প্রশংসা করার সময় যে শব্দগুলোর ব্যবহারে সতর্ক থাকতে হবে

শিশুকে প্রশংসা করার সঠিক উপায়

শারীরিক ও মানসিক ভাবে একটি শিশু স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে বেড়ে ওঠার জন্য বাবা মা’কে হাজারো বিষয়ে মনোযোগী হতে হয়। কেবল মৌলিক চাহিদাগুলো পূরণ করাই নয় বরং শিশুকে বিভিন্ন বিষয়ে উৎসাহিত করার জন্য প্রশংসা করাও বেশ প্রয়োজন। তবে যে কোন প্রশংসা করার আগে প্রশংসার শব্দগুলো সম্পর্কে সচেতন হতে হবে। কেননা কখনো কোন প্রশংসা শিশুকে তো উৎসাহী করে তোলেই না বরং সে কাজটির প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলতে পারে।   “ প্রশংসা এক ধরণের মানসিক ওষুধ। যে কোন ওষুধের মতই “প্রশংসা” ইচ্ছেমত ব্যবহার করা যাবেনা। প্রত্যেকটি ওষুধের ব্যপারেই কিছু নিয়ম কানুন (যেমন- কতবার ও…

বিস্তারিত পড়ুন

ভুল আচরণের জন্য শিশুর কাছে ক্ষমা চাওয়া গুরুত্বপূর্ণ কেন

ভুল আচরণের জন্য শিশুর কাছে ক্ষমা চাওয়া

ভুল করে তা স্বীকার করার বা তার জন্য ক্ষমা চাওয়ার মানসিকতা আমাদের অনেকেরই থাকেনা। নিজের সন্তানের কাছে ক্ষমা চাওয়াটা অনেক বাবা-মা ই স্বাভাবিক ভাবে নিতে পারেনা। কিন্তু আপনি কি জানেন যে ভুল স্বীকার করার চর্চা এবং তার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা আপনার ও আপনার সন্তানের মধ্যকার সম্পর্কের জন্য কতোটা জরুরী? কি হতে পারে যদি ভুল আচরণের জন্য সন্তানের কাছে ক্ষমা না চান ভুল করাটা আমাদের জীবনেরই এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। আমরা সবাই কমবেশি অযাচিত কাজ করে ফেলি। অধিকাংশ পিতা-মাতা মনে করে যে সন্তানের কাছে নিজের দোষ স্বীকার করলে মনে হয় তারা ছোট…

বিস্তারিত পড়ুন

শাস্তি না দিয়েই কিভাবে শিশুকে শৃঙ্খলা শেখানো যায়

শাস্তি না দিয়েই কিভাবে শিশুকে শৃঙ্খলা শেখানো যায়

সন্তান প্রতিপালন নিঃসন্দেহে অত্যন্ত কঠিন ও মানবজীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কাজ। সব বাবা-মা কেই খুব বিচক্ষণতা, ধৈর্য ও পরিশ্রমের মাধ্যমে সন্তান মানুষ করতে হয়। সন্তান প্রতিপালনের অনেকগুলো ধাপের একটি হচ্ছে শৃঙ্খলা শেখানো। বাচ্চাকে শৃঙ্খলা অবশ্যই শেখাতে হবে, তবে তা যেন হয় গঠনমূলক ও ইতিবাচক উপায়ে। শাস্তি ও  শৃঙ্খলার মধ্যে যে সীমারেখা রয়েছে তা জানতে হবে এবং শিশুকে শাস্তি না দিয়েই কিভাবে শৃঙ্খলিত জীবনে অভ্যস্ত করা যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।  আরও পড়ুনঃ শিশুকে শৃঙ্খলা শেখাতে শাস্তি দেয়া কতটা কার্যকরী শাস্তি ছাড়াই কিভাবে শিশুকে শৃঙ্খলা শেখানো যায়? শাস্তি না দিয়েও শিশুকে শৃঙ্খলা…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুকে শৃঙ্খলা শেখাতে শাস্তি দেয়া কতটা কার্যকরী

শিশুকে শৃঙ্খলা শেখাতে শাস্তি দেয়া কতটা কার্যকরী

শিশুকে শৃঙ্খলা শেখাতে বা শাসন করতে প্রায় সব বাবা-মা শাস্তির সাহায্য নেয়। আমরা মনে করি শাস্তির ভয় দেখিয়ে শিশুকে সঠিক পথে পরিচালিত করা সম্ভব। যে ব্যাপারটি আমরা খেয়াল করিনা বা করতে চাইনা তা হলো শাস্তির ফলে শিশুর মনে যে নেতিবাচক প্রভাব পরে এবং তা তার বিকাশকে কতোখানি বিঘ্নিত করে। শাস্তি ও শৃঙ্খলার মধ্যে পার্থক্য কি? শৃঙ্খলা হচ্ছে শিশুকে আত্ম-নিয়ন্ত্রণ, আত্মবিশ্বাস ও দায়িত্ব  শেখানোর এক উপযুক্ত কৌশল। কোনটা ভাল, কোনটা ভুল, কোনটা করা যাবে, কোনটা করা যাবেনা এই সব কিছু শিশুকে সুন্দর করে রপ্ত করানোর পন্থাই হচ্ছে শৃঙ্খলা।    কোনধরনের আক্রমনাত্নক আচরণের…

বিস্তারিত পড়ুন

চাইল্ড শেইমিং এর ক্ষতিকর দিক এবং কিভাবে তা এড়িয়ে চলবেন

চাইল্ড শেইমিং

‘আজ যে শিশু পৃথিবীর আলোয় এসেছে’–সেই বিখ্যাত গানের মত করে শিশুর জন্য সাজানো বাগান উপহার দিতে আমরা কেই বা না চাই? শিশুর সুন্দর ভাবে বেড়ে ওঠার জন্য যে চমৎকার পরিবেশটির প্রয়োজন সেটা আমরা কয়জনই বা নিশ্চিত করতে পারছি? শিশুর আচরণ ঠিক করতে আমরা অনেকেই অনেক পন্থা অবলম্বন করি, যেমন- বকাবকি, মার দেয়া, ভয় দেখানো, লজ্জা দেয়া ইত্যাদি। আমাদের করা এমনই কিছু আচরণকে প্যারন্টিং এর ভাষায় অভিহিত করা হয়েছে “চাইল্ড শেইমিং” নামে। এই শেইমিং এর খুঁটিনাটি নিয়েই আজকের আর্টিকেল। চাইল্ড শেইমিং বিষয়টা আসলে কি শেইমিং শব্দটাকে লজ্জা দেয়া, অপমান করা, কটূক্তি…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুরা কেন মিথ্যা বলে এবং এ ব্যাপারে বাবা-মায়ের করণীয় কি

শিশুরা কেন মিথ্যা বলে

সন্তান প্রতিপালন সবসময়ের জন্যই কঠিন এক দায়িত্ব। বাচ্চা মানুষ করতে নানা ধরনের খারাপ-ভাল অবস্থার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। এমনই একটি সমস্যা হচ্ছে শিশুর মিথ্যা বলা। প্রায় সব বাচ্চাই কমবেশি মিথ্যা বলে এবং বাবা-মা এটা নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েন। শিশুর মিথ্যা বলার সাথে যেসব বিষয় জড়িত তা নিয়েই আজকের লেখাটি সাজানো হয়েছে। আশাকরি এই লেখাটি আপনাদের প্যারেন্টিং এ কিছু উপকারী দিক সংযুক্ত করতে সহায়ক হবে। শিশুরা কেন মিথ্যা বলে? শিশুর মিথ্যা বলার পেছনে একাধিক কারণ থাকতে পারে। বয়স-ভেদে সেই কারণ ভিন্ন ভিন্ন হয়। সাধারণত শিশুরা নিম্নোক্ত কারণে মিথ্যা বলে থাকে: শাস্তির…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুর ভুল বা ব্যর্থতায় মা বাবার প্রতিক্রিয়া কেমন হওয়া উচিত

শিশুর ভুল বা ব্যর্থতায় মা বাবার প্রতিক্রিয়া কেমন হওয়া উচিত

ভুল, ব্যর্থতা কিংবা দোষ!  এই তিনটি শব্দই আমাদের জীবনের সাথে ওতপ্রোত ভাবে মিশে আছে। বিল গেটস এর মত একজন মানুষ পর্যন্ত বলেছেন, “সফলতার উদযাপন নয় বরং ভুল থেকে শিক্ষা নেয়াটাই বেশি জরুরী।” –কিন্তু এই ভুল যদি আপনার ছোট্ট শিশুটি করে থাকে? শিশুর সেই ভুল শুধরাতে গিয়ে বাবা মা হিসেবে আপনিও আবার ভুল করে ফেলছেন না তো? শিশুর সুন্দর ভাবে বেড়ে উঠার জন্য চমৎকার একটি পরিবেশ সৃষ্টি করে দেয়া বাবা-মা হিসেবে আমাদের সকলেরই দায়িত্ব। আর তাই শিশুর ভুল, দোষ কিংবা ব্যর্থতায় শিশুর সাথে ঠিক কি ধরণের আচরণ করা উচিৎ এ নিয়ে…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুর মানবিক উন্নয়নের কৌশলঃ শাস্তি প্রদান না অন্য কিছু

ভালবেসে শেখান

লিখেছেন – Sharmin Shamon হেলদি প্যরেন্টিং এর অন্যতম উদ্দেশ্য হলো বাচ্চাকে না মেরে কৌশলে সুন্দর এবং কার্যকরী পদ্ধতিতে আত্ম-নিয়ন্ত্রণ করতে শেখানো। মানুষ যখন নিজের উপর নিজে নিয়ন্ত্রন তৈরি করতে পারে তখন সে যেকোন খারাপ কিছু থেকেই নিজেকে দূরে রাখতে পারে। ভয়-ভীতি, মারধোর আর চাপিয়ে দেয়া শিক্ষা  মানুষকে সাময়িক ঠিক রাখলেও বেশিরভাগ সময়েই এর দীর্ঘমেয়াদি কোন সুফল থাকেনা। একটি অতি পরিচিত দৃশ্য কল্পনা করুন। আপনি আপনার বাচ্চাকে কিছু একটা করতে বলছেন সে করছে না, আবার কিছু একটা করতে না করছেন কিন্তু সে শুনছে না, আপনি উঠে এসে জোরে দিলেন এক থাপ্পড়!…

বিস্তারিত পড়ুন

সফল মানুষের যে ছয়টি গুণাবলি আপনার শিশুর মধ্যে গড়ে তোলা উচিত।

সফল মানুষের যে ছয়টি গুণাবলি আপনার শিশুর মধ্যে গড়ে তোলা উচিত।

শাসন মানেই যে শুধু খারাপ ব্যবহারের কারণে শাস্তি দেওয়া, তা কিন্তু নয়৷ আপনি ভালো আচরণের কারণে পুরষ্কৃত করুন কিংবা খারাপ ব্যাবহারের প্রতিক্রিয়া খারাপভাবে করুন বা যেভাবেই করুন না কেন, খেয়াল রাখতে হবে এর মাধ্যমে শিশুর জীবনে চলার পথে যে গুণগুলো প্রয়োজন, সেগুলো বিকাশে সহায়তা করছে কিনা।

বিস্তারিত পড়ুন

টাইম আউট (Time Out) প্রক্রিয়ার মাধ্যমে শিশুকে শৃঙ্খলা শেখানোর উপায় কি?

"টাইম আউট" (Time Out) প্রক্রিয়ার মাধ্যমে শিশুকে শৃঙ্খলা শেখানোর উপায় কি?

শিশুর আচার আচরণ যখন হঠাৎ করে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় এবং মা-বাবার ধৈর্য্য পরীক্ষা করতে শুরু করে, তখন বেশীরভাগ মা-বাবা নিজেরাই ‘টাইম আউট’ (Time Out) প্রক্রিয়া আবিষ্কার করে ফেলেন। ধরা যাক, একজন মা তার শিশুকে মানা করলেন যাতে সে তার ভাইকে না মারে। কিন্তু শিশু তো কথা শুনবেই না। সে বারবারই মারছে, সুযোগ পেলেই মারছে, মেরেই যাচ্ছে। দু-একবার চোখ রাঙানিতেও কাজ হচ্ছে না। এমনকি কোন কারণ ছাড়াই হাসতে হাসতে মারছে। এমতাবস্থায়, এই ব্যবহারটা যে গ্রহণযোগ্য না, এটা শিশুকে বোঝানোর জন্যে অনেক মা বাবাই শিশুকে ঘরের নির্দিষ্ট একটি যায়গায় কিছুক্ষণের জন্যে…

বিস্তারিত পড়ুন