শিশুর ইন্দ্রিয়ের বিকাশ | শ্রবণ শক্তি

শিশুর শ্রবণ শক্তির বিকাশ

একটি নবজাতক শিশু কিন্তু বেশ শুনতে পায়, তবে তার মানে এই নয় যে সে আমাদের মতই শুনতে পায়। তাদের মধ্যকর্ন তরলে পূর্ণ থাকে, যেটা তাকে পুরোপুরি শুনতে বাধা দেয়। এছাড়াও নবজাতক হিসেবে তার শ্রবণ ইন্দ্রিয়ও পরিপক্ব থাকে না। একারণে বাচ্চারা সাধারণত উচ্চস্বরে কথা বললে বা শব্দ হলে তাতে সাড়া দেয়। নবজাতক শিশু তার শ্রবণ শক্তির মাধ্যমেই চারপাশ থেকে তথ্য সংগ্রহ করতে পারে। এছাড়াও শ্রবণ শক্তি দিয়েই শিশুর ভাষা শিক্ষার হাতেখড়ি হয় এবং মানসিক পরিপক্বতার ক্ষেত্রেও এটা বেশ প্রভাব রাখে। তাই নবজাতক শিশুর শ্রবণ শক্তিতে কোন ধরনের সমস্যা আছে কি না…

Read More

শিশুর ইন্দ্রিয়ের বিকাশ | দৃষ্টিশক্তি

শিশুর দৃষ্টিশক্তির বিকাশ

শিশুর জন্মের পর থেকেই তার শারীরিক, মানসিক এবং আবেগ জনিত সব ধরনের বিকাশ হয়ে থাকে তার দৃষ্টি শক্তির সাহায্যে। কারণ একটি শিশু তার দৃষ্টি শক্তি দিয়েই চারপাশের পরিবেশ থেকে সব ধরনের তথ্যগুলো সংগ্রহ করে থাকে। জন্মের ঠিক পর পর দৃষ্টি শক্তি দিয়ে এই ধরনের তথ্য সংগ্রহের পরিমাণ কম থাকলেও শিশুর বয়স বাড়ার সাথে সাথে এই তথ্য সংগ্রহের পরিমাণও বৃদ্ধি পেতে থাকে। নবজাতকের দৃষ্টিশক্তি কখন পরিপূর্ণভাবে বিকশিত হয়? শিশুর দেখতে পাওয়া এবং শুনতে পাওয়ার অনুভূতির বিকাশ একইভাবে হয়না।শিশুর জন্মের প্রথম মাসের শেষের দিকেই তার শ্রবণ শক্তি পুরপুরি বিকশিত হয়ে যায়। তবে…

Read More

নবজাতকের ওজন | স্বাভাবিক বৃদ্ধি – হ্রাস এবং শিশুর গড় ওজন।

নবজাতকের ওজন | স্বাভাবিক বৃদ্ধি - হ্রাস এবং শিশুর গড় ওজন।

জন্মের সময় গড়ে নবজাতকের ওজন প্রায় ৭.৫ পাউন্ড (৩.৪ কেজি) হয় যদিও ৫.৮ – ১০ পাউন্ডকে (২.৬ – ৪.৫ কেজি ) শিশুর ওজনের স্বাভাবিক পরিসীমা হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সব বাবা মায়েরাই চায় তাদের সন্তান সাধারণের মাঝে অসাধারণ হয়ে তাদের গর্বিত করুক। কিন্তু শুধুমাত্র একটা বিষয়ে তারা চায় তাদের সন্তান অন্যদের মতো সাধারণ বা স্বাভাবিক মাত্রায় থাকুক। সেটা হচ্ছে “ওজন “। বাচ্চার ওজন কম হলে সে অসুস্থ নাকি আকারে ছোট সেটা নিয়ে বাবা মায়ের দুশ্চিন্তা বেড়ে যায় আবার ওজন বেশি হলে তার ওবেসিটি নিয়ে তারা চিন্তিত হয়ে পড়েন। তবে, আমাদের…

Read More

শিশুর ঘাড় কখন শক্ত হয়

শিশুর ঘাড় শক্ত হওয়া

শিশুর ঘাড় কখন শক্ত হয় শিশুর বসা কিংবা হাটা, চলাফেরা করা, এসবের ভিত্তিই হলো শিশুর ঘাড় শক্ত হওয়া এবং মাথা নিয়ন্ত্রণ করতে পারা। জন্মের সময় শিশুর ঘাড়ের হাড় বেশ নরম থাকে, তাই সে নিজের মাথার ভার নিতে পারে না- যার ফলে মাথা নিজে নিজে নিয়ন্ত্রণও করতে পারে না। তবে ধীরে ধীরে একের পর এক শিশুর ঘাড় শক্ত হওয়া, বসা, হামাগুড়ি দেওয়া, হাটা ইত্যাদি মাইলস্টোন তার জন্মের এক বছরের মধ্যে আয়ত্তে আসতে শুরু করে। এক মাস বয়সে শিশু শোয়া থেকে মাথা কিছুটা তুলতে পারে। ৪ মাস বয়স হলে, তাকে কোনকিছুতে হেলান…

Read More

জন্মের পরপরই মায়ের ত্বকের সংস্পর্শে আসা (ক্যাঙ্গারু কেয়ার) নবজাতকের জন্য কতটা উপকারী?

জন্মের পরপরই মায়ের ত্বকের সংস্পর্শে আসা নবজাতকের জন্য কতটা উপকারী?

হাসপাতালে আগেই বলে রাখুন যাতে জন্মানোর পরপরই আপনার শিশুকে আপনার সংস্পর্শে এনে রাখা হয়। মাথায় ছোট একটা টুপি দিয়ে এবং শুধুমাত্র পিঠে গরম কম্বল দিয়ে ঠিক আপনার বুকে উপর শুইয়ে দিতে বলুন। এই কাজটা শিশু জন্ম নেওয়ার সাথে সাথে যত তাড়াতারি করতে পারা যায়, তত ভালো। শিশুকে ধোয়া কিংবা ওজন মাপা, পরীক্ষা নিরীক্ষা করারও পূর্বে, এমনকি শিশুর নাভি কেটে ক্ল্যাম্প লাগানোরও আগে হালকা মুছেই শুইয়ে দিতে বলুন। যদিও এই কাজটি করতে বেশ কয়েক মিনিট সময় লেগে যায়, তবুও এটা এখন পরীক্ষিতই যে, জন্মানোর সাথে সাথে মায়ের সংস্পর্শে আসাটা শিশুর পৃথিবীতে…

Read More

শিশুকে পেটের উপর ভর দিয়ে শোয়ানো কেন জরুরী? | টামি টাইম (Tummy Time)

শিশুকে পেটের উপর ভর দিয়ে শোয়ানো বা টামি টাইম (Tummy Time) দেয়া কেন জরুরী?

আপনার ছোট্ট শিশুটি যে কিনা নিজে থেকে দাঁড়াতে পারেনা এমনকি উঠে বসতেও পারে না ঠিকমত, সে প্রায়ই উপুড় হয়ে পেটের উপর ভর দিয়ে সবকিছু দেখার চেষ্টা করে এবং খেলাধুলা করে। আর এই পেটের উপর ভর দিয়ে উপুড় হয়ে থাকাকেই টামি টাইম (Tummy Time) বলা হয়।

Read More

শিশুর ওজন না বাড়া (০-১২ মাস)

শিশুর ওজন না বাড়া (০-১২ মাস)

শিশুর ওজন ও স্বাস্থ্য নিয়ে মা-বাবার দুশ্চিন্তার শেষ নেই। ‘কেন আমার বাচ্চার ওজন বাড়ছে না’, প্রশ্নটি আপনাকে তাড়া করে। যদিও আপনি তার খাবার, শারীরিক কার্যকলাপ এবং ঘুমের যথেষ্ট যত্ন নিচ্ছেন, তবুও আপনার সন্তানের ওজন না বাড়া একটি প্রধান উদ্বেগ হতেই পারে।

Read More

বাচ্চা কোন বয়স থেকে দাঁড়াতে শেখে?

বাচ্চা কোন বয়স থেকে দাঁড়াতে শেখে?

প্রথমবারের মত দাঁড়ানো এবং দাঁড়িয়ে থেকে নিচের দিকে তাকানো, এগুলো একটা ছোট্ট শিশুর জন্য খুবই রোমাঞ্চকর বিষয়। আপনার শিশু যখন দাঁড়াতে পারে তখন তার জন্য সম্পূর্ণ নতুন একটা জগতের দরজা খুলে যায়। শিশুর স্বাভাবিক বৃদ্ধি এবং আত্মবিশ্বাসের জন্য হঠাৎ করেই নতুন এই দক্ষতাটি কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

Read More

শিশুর সামনে ঠিক তেমনই আচরণ করুন যা আপনি ওর কাছ থেকে দেখতে চান

শিশুর সামনে ঠিক তেমনই আচরণ করুন যা আপনি ওর কাছ থেকে দেখতে চান

শিশুরা অনুকরণ প্রিয়। ওদের সামনে যে যেটা করে ওরা ঠিক সেটাই অনুকরণ করে থাকে। তাই আপনি ওদের সামনে যাই করবেন খানিকক্ষণ পরে দেখবেন ওরা সেটাই করছে। খুব চাপে পরলে আপনি কি করেন, কেমন করে অন্যদের সাথে ব্যাবহার করেন, অথবা নিজের আনন্দ, রাগ কি করে প্রকাশ করেন এসব কিছুই কিন্তু আপনার ছোট্ট শিশুটি দেখছে আর শিখছে। মাটি যেমন করে পানি শুষে নেয়, আপনার শিশু ঠিক তেমন করেই আপনার যাবতীয় ব্যাবহার ওর মনের মধ্যে নিয়ে নেয়। মনোযোগ দিক বা না দিক, ও কিন্তু আপনার সব কিছুই খেয়াল করছে। শিশু দেখে, শেখে এবং…

Read More

বাচ্চা কোন বয়স থেকে উপুড় হতে বা গড়াতে শেখে?

বাচ্চা কোন বয়স থেকে উপুড় হতে বা গড়াতে শেখে?

যখনই আপনার ছোট্ট সন্তান অঙ্গ সঞ্চালনের ব্যাপারে দক্ষ হয়ে যাবে, এরপর থেকেই ওকে এপাশ-ওপাশ উল্টে যেতে দেখবেন প্রতিনিয়ত। প্রথমবারের মত নিজে নিজে উপুড় হতে পারা বা গড়ানো, বাচ্চা এবং বাবা-মা দুজনের জন্যই আশ্চর্যজনক, আর যদি আপনার বাচ্চাকে পেট থেকে পিঠের দিকে উল্টাতে দেখেন তাহলে খুব একটা অবাক হবেন না , কেননা অতি শীঘ্রই এই ব্যাপারটা আপনার সন্তানের সবচাইতে প্রিয় খেলায় পরিণত হবে। হাত, গলা, পিঠ এবং শরীরের বাড়ন্ত শক্তি দিয়ে আপনার সন্তান শরীরের নড়াচড়া করার বা গড়াগড়ি করার মতো নতুন নতুন পদ্ধতি আবিষ্কার করবে। তবে এই মুহুর্তে আপনাকে অবশ্যই অনেক…

Read More