গর্ভাবস্থায় সায়াটিকার ব্যথা (Sciatica Pain)

গর্ভাবস্থায় সায়াটিকার ব্যথা

গর্ভাবস্থায় অনাগত সন্তানের জন্য মায়ের দুশ্চিন্তার যেমন শেষ নেই, তেমনি শারীরিক বিভিন্ন জটিলতাও এতে যোগ করে নতুন মাত্রা।  এরকমই একটি রোগ সায়াটিকা।  গর্ভাবস্থায় প্রায় ৫০%  মহিলা এই সমস্যায় পড়েন৷  গর্ভাবস্থায় সায়াটিকা এবং এ সমস্যায় করণীয়   নিয়েই আজকের আলোচনা।   সায়াটিকা কি? সায়াটিকা এক ধরণের ব্যাকপেইন যেখানে রোগী পিঠে বা পশ্চাৎদেশে তীক্ষ্ণ ব্যাথা অনুভব করেন এবং এই ব্যাথা কোমর থেকে পা পর্যন্ত ছড়িয়ে যেতে পারে। এই ব্যাথাটি সায়াটিক স্নায়ুর সাথে সম্পর্কিত।  সায়াটিক নার্ভ শরীরের সবচেয়ে বড় স্নায়ু যা মেরুদন্ডের নিচের দিক থেকে শুরু হয়ে একেবারে পা পর্যন্ত পৌছে গেছে। শরীরের কোন…

বিস্তারিত পড়ুন

গর্ভাবস্থায় রেস্টলেস লেগ সিনড্রোম | পায়ে অস্থিরতা

গর্ভাবস্থায় রেস্টলেস লেগ সিনড্রোম

কখনো কি ভেবেছেন আপনার পা দুটো আপনার কথা না শুনলে কেমন লাগবে?  যদি  রাতে হঠাৎ ঘুম ভেংগে পা দুটো নাড়ানোর অদম্য ইচ্ছা হয়? শুনতে অবাক লাগলেও এমনটা হওয়া কাল্পনিক কিছু নয়।  এটি একটি রোগ যা রেস্টলেস লেগ সিনড্রোম (Restless leg syndrome) বা আরএলএস নামে পরিচিত। পুরুষের চাইতে মহিলারাই বেশি আক্রান্ত হন এই রোগে।  গর্ভাবস্থায় প্রায় এক তৃতীয়াংশ মহিলার ক্ষেত্রে রেস্টলেস লেগ সিনড্রোমের উপসর্গ  দেখা দেয় । রেস্টলেস লেগ সিনড্রোম কি? এটি স্নায়ুতন্ত্রের সাথে জড়িত এমন একটি রোগ যাতে রোগীর অনবরত পায়ে অস্বস্তি ও যন্ত্রণা হয়। পায়ে শিরশিরে ভাব ও প্রদাহ…

বিস্তারিত পড়ুন

গর্ভাবস্থায় পাইলস (হেমোরয়েডস) | কারণ, লক্ষণ ও করণীয়

গর্ভাবস্থায় পাইলস (হেমোরয়েডস)

সারাবিশ্বে পাইলস বা হেমোরয়েডস একটি সাধারণ রোগ।  আমাদের দেশে এটি অর্শ্বরোগ নামেও পরিচিত। সাধারণ মানুষের তো বটেই,  প্রেগ্নেন্সির সময়েও পাইলস দেখা দিতে পারে। এর পরিমাণও কম নয়। শতকরা ৫০% এর বেশি মহিলার ক্ষেত্রে গর্ভাবস্থায় পাইলস দেখা দেয়। যেহেতু তাৎক্ষণিক কোন সমাধান নেই এই রোগের, তাই মায়েরা যথেষ্ট বিপাকে পড়ে যান। তবে ভয়ের কিছু নেই, এই রোগে গর্ভের শিশুর কোন ক্ষতি হয়না। ঘরোয়া চিকিৎসা নিয়েও আপনি এই সমস্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন। তাহলে আসুন জেনে নেয়া যাক গর্ভাবস্থায় পাইলসের আদ্যেপান্ত! পাইলস কি? পাইলস হল মলাশয় সংলগ্ন স্থানে স্ফীত বা বর্ধিত আকারের শিরার…

বিস্তারিত পড়ুন

গর্ভাবস্থায় হাত অবশ লাগা বা ঝিনঝিন করা | কারপাল টানেল সিনড্রোম

গর্ভাবস্থায় কার্পাল টানেল সিনড্রোম

একটি মেয়ের জীবনে সবচেয়ে সুন্দরতম সময় হল গর্ভধারণের সময়টুকু। ক্ষুদ্র একটি ভ্রুণকে গর্ভে ধারণ করে পরিপূর্ণ মানবশিশু জন্ম দেয়া পর্যন্ত তাকে অনেক অদ্ভুত অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হতে হয়। কিছু মায়েদের ক্ষেত্রে এই সময়ে অস্বস্তিতে নতুন মাত্রা যুক্ত করে কারপাল টানেল সিনড্রোম (Carpal Tunnel Syndrome)।  প্রায় ৬০ ভাগ অন্ত:সত্ত্বা মহিলা গর্ভধারণের কোন একটি পর্যায়ে আক্রান্ত হন এই সিন্ড্রমে! বিশেষ করে কর্মজীবি মহিলাদের প্রেগনেন্সির সময়ে কাজের মুহুর্তকে খিটখিটে করে তুলে এই অসুখ। রাতের বেলা ঠিকভাবে ঘুমাতে পারেন না অনেকেই। যদিও এটি ততটা উদ্বিগ্ন হওয়ার মত কিছু নয়। বাচ্চা প্রসবের পরেই বেশিরভাগ মায়েরা আপনা…

বিস্তারিত পড়ুন

গর্ভাবস্থা ও করোনা ভাইরাস | এখন পর্যন্ত পাওয়া তথ্য উপাত্ত কি বলছে

করোনা ভাইরাস ও গর্ভাবস্থা

গত ১১ মার্চ কোভিড–১৯ কে প্যানডেমিক বা বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। তবে প্যানডেমিক ঘোষণা করে ভাইরাসটি কতটা ভয়াবহ তা বোঝানো হয়নি, বোঝানো হয়েছে বিশ্বের ব্যাপক অঞ্চলজুড়ে তা ছড়িয়ে পড়া পরিস্থিতিকে। কোভিড–১৯ বা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে এবং এই প্রাদুর্ভাবের কারনে গর্ভবতী নারী এবং গর্ভের শিশুর সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা নিয়ে মায়েদের দুশ্চিন্তাও বেড়েই চলছে। যেহেতু করোনা ভাইরাসের লক্ষন অনেকটাই সাধারণ ফ্লু এর মত তাই প্রথমেই এই রোগীকে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বলে সনাক্ত করা যাচ্ছে না। সম্প্রতি স্ত্রীরোগ ও প্রসূতিবিদ্যায় বিশেষজ্ঞ যুক্তরাজ্যের রয়্যাল…

বিস্তারিত পড়ুন

সাইটোমেগালোভাইরাস (Cytomegalovirus) । গর্ভাবস্থায় কতটুকু ঝুঁকিপূর্ণ

সাইটোমেগালোভাইরাস

সাইটোমেগালোভাইরাস (Cytomegalovirus) কি? সাইটোমেগালোভাইরাস হার্পিস ভাইরাস প্রজাতির এক ধরণের ভাইরাস। গর্ভাবস্থায় এ জাতীয় ভাইরাস শিশুকে আক্রমণ করা ঘটনা খুব বেশি ঘটে। আমেরিকান একাডেমি অফ পিডিয়াট্রিক্স এর মতে, শতকরা ১% শিশু এই ভাইরাসের ইনফেকশন নিয়ে জন্মগ্রহণ করে থাকে। এ অবস্থাকে জন্মগত সিএমভি (Congenital CMV) বলা হয়। জন্মগত সিএমভি থাকলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই শিশুর খুব বেশি একটা সমস্যা হয় না তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে জন্মের পরপর শিশু বেশ অসুস্থ হয়ে যেতে পারে যা পরবর্তীতে দীর্ঘ মেয়াদি বিবিধ সমস্যা তৈরি করতে পারে। অন্যদের ক্ষেত্রে আপাতদৃষ্টিতে শিশুকে সুস্থ মনে হলেও পরবর্তীতে শিশুর কানে কম কিংবা…

বিস্তারিত পড়ুন

গর্ভাবস্থায় অতিরিক্ত গরম ও ঘামের কারণ ও করণীয়

গর্ভাবস্থায় অতিরিক্ত গরম ও ঘামের কারণ ও করণীয়

গর্ভবতী নারীদের ক্ষেত্রে একটি মন্তব্য হয়ত আপনারা অনেকেই শুনে থাকবেন, আর সেটা হল তাদের চেহারা যেন চকচক করছে! তবে চেহারার এই চকচকে ভাবের একটা মূল কারণ হতে পারে অতিরিক্ত ঘাম। গর্ভকালীন সময়ে অতিরিক্ত ঘামানো খুবই স্বাভাবিক। ঠিক তাই, গর্ভকালীন সময়ে ঘরের অন্য সবাই যখন একদম স্বাভাবিক অবস্থায় আছে তখন আপনি যদি একটু বেশি গরম অনুভব করেন এবং একটু বেশিই ঘামানো শুরু করেন তবে এ নিয়ে দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হওয়ার কোনো কারণ নেই, কেননা মাতৃত্ব কালীন অভিজ্ঞতাগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। কেন এই ঘাম আর কতদিন পর্যন্ত এমন হয়ে থাকে? এই প্রশ্নগুলোর উত্তর ছাড়াও…

বিস্তারিত পড়ুন

গর্ভাবস্থায় ওজন কমে গেলে করণীয় কি? | সাধারণ কারণ, উদ্বেগ এবং বিশেষ সতর্কতা

গর্ভাবস্থায় ওজন কমে গেলে করণীয় কি?

কি কি কারণে গর্ভাবস্থায় ওজন কমতে পারে, কতটুকু কমা স্বাভাবিক, ওজন কমে যাওয়ার ক্ষতিকর দিক এবং এ সমস্যা প্রতিরোধের উপায় সম্পর্কে জেনে নিন।

বিস্তারিত পড়ুন

গ্রুপ বি স্ট্রেপটোকক্কাস (Group B streptococcus) | গর্ভকালীন ঝুঁকি

গ্রুপ বি স্ট্রেপটোকক্কাস

গর্ভাবস্থায় গ্রুপ বি স্ট্রেপ (Group B strep) এর ফলে মা এবং গর্ভের শিশুর উপর কি প্রভাব পরতে পারে এবং এর লক্ষণ ও করণীয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন।

বিস্তারিত পড়ুন

গর্ভাবস্থায় আয়রনের অভাব জনিত রক্তস্বল্পতার ওষুধ সম্পর্কে বিস্তারিত

আয়রনের অভাব জনিত রক্তস্বল্পতার ওষুধ

গর্ভাবস্থায় আয়রনের অভাবজনিত রক্তাল্পতার চিকিৎসার জন্য কোন ঔষুধ ব্যবহার করা হয়? আয়রনের অভাবজনিত রক্তস্বল্পতার মানে শরীর আয়রনের মাত্রা কম থাকা যা শরীরের প্রয়োজনীয় লোহিত রক্তকণিকা তৈরির জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কিছু মহিলা গর্ভাবস্থায় রক্তস্বল্পতার সমস্যায় ভুগে থাকেন । ভিটামিনের পাশাপাশি আয়রন সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ হতে পারে গর্ভাবস্থায় আয়রনের অভাবজনিত রক্তস্বল্পতা বা এনিমিয়ার সবচেয়ে কার্যকরী চিকিৎসা। ঠিক কোন ডোজের ওষুধ আপনার লাগবে তা নির্ধারণ করতে হয়তোবা কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষার প্রয়োজন হতে পারে। তবে, ঔষুধের সর্বোচ্চ কার্যকারিতা নিশ্চিত ও অপ্রীতিকর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া এড়িয়ে চলার জন্য স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী কোন কর্মী বা চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে থাকা হতে পারে…

বিস্তারিত পড়ুন