গর্ভাবস্থায় ওজন কমে গেলে করণীয় কি? | সাধারণ কারণ, উদ্বেগ এবং বিশেষ সতর্কতা

গর্ভাবস্থায় ওজন কমে গেলে করণীয় কি?

কি কি কারণে গর্ভাবস্থায় ওজন কমতে পারে, কতটুকু কমা স্বাভাবিক, ওজন কমে যাওয়ার ক্ষতিকর দিক এবং এ সমস্যা প্রতিরোধের উপায় সম্পর্কে জেনে নিন।

Read More

গ্রুপ বি স্ট্রেপটোকক্কাস (Group B streptococcus) | গর্ভকালীন ঝুঁকি

গ্রুপ বি স্ট্রেপটোকক্কাস

গর্ভাবস্থায় গ্রুপ বি স্ট্রেপ (Group B strep) এর ফলে মা এবং গর্ভের শিশুর উপর কি প্রভাব পরতে পারে এবং এর লক্ষণ ও করণীয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন।

Read More

আয়রনের অভাব জনিত রক্তস্বল্পতার ওষুধ সম্পর্কে বিস্তারিত

আয়রনের অভাব জনিত রক্তস্বল্পতার ওষুধ

গর্ভাবস্থায় আয়রনের অভাবজনিত রক্তাল্পতার চিকিৎসার জন্য কোন ঔষুধ ব্যবহার করা হয়? আয়রনের অভাবজনিত রক্তস্বল্পতার মানে শরীর আয়রনের মাত্রা কম থাকা যা শরীরের প্রয়োজনীয় লোহিত রক্তকণিকা তৈরির জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কিছু মহিলা গর্ভাবস্থায় রক্তস্বল্পতার সমস্যায় ভুগে থাকেন । ভিটামিনের পাশাপাশি আয়রন সাপ্লিমেন্ট গ্রহণ হতে পারে গর্ভাবস্থায় আয়রনের অভাবজনিত রক্তস্বল্পতা বা এনিমিয়ার সবচেয়ে কার্যকরী চিকিৎসা। ঠিক কোন ডোজের ওষুধ আপনার লাগবে তা নির্ধারণ করতে হয়তোবা কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষার প্রয়োজন হতে পারে। তবে, ঔষুধের সর্বোচ্চ কার্যকারিতা নিশ্চিত ও অপ্রীতিকর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া এড়িয়ে চলার জন্য স্বাস্থ্যসেবা প্রদানকারী কোন কর্মী বা চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে থাকা হতে পারে…

Read More

আর্লি প্রেগন্যান্সি ফেইলিওর বা ব্লাইটেড ওভাম (blighted ovum)

আর্লি প্রেগন্যান্সি ফেইলিওর বা ব্লাইটেড ওভাম

Early pregnancy failure  কি? ডাক্তারি ভাষায় একে ব্লাইটেড ওভাম (blighted ovum) অথবা anembryonic gestation বলা হয়ে থাকে এবং এটা গর্ভপাতের অন্যতম একটি কারণ। এমনটা হয়ে থাকে যখন একটি নিষিক্ত ডিম্বাণু জরায়ুতে রোপিত হয় কিন্তু পরবর্তীতে স্বাভাবিক বৃদ্ধি হয়ে সেটা যখন ভ্রূণে রূপান্তরিত হয় না। আর আপনার যদি এমন সমস্যা হয়ে থাকে, তাহলে আপনি প্রথম তিন মাস পার হওয়ার আগ পর্যন্ত জানতেও পারবেন না যে আপনার নিষিক্ত ডিম্বাণুটি ভ্রূণে রূপান্তরিত হয়নি। আপনার যদি Early pregnancy failure বা ব্লাইটেড ওভাম হয়ে থাকে তাহলে এর পরবর্তী ধাপে কি হবে? আপনার যদি এই ধরনের…

Read More

গর্ভাবস্থায় কৃমি | কারণ, উপসর্গ এবং প্রতিরোধ

গর্ভাবস্থায় কৃমি

আপনি জানেন কি সারা বিশ্বে প্রায় ২০ কোটি মানুষ কৃমি দ্বারা আক্রান্ত হয়? তাদের মধ্যে ৩ থেকে ৪ কোটি মানুষ শুধু আমেরিকা এবং কানাডারই অধিবাসী।  এসব কৃমি সাধারণত শিশুদের আক্রমণ করে। তবে মাঝে মাঝে বয়োবৃদ্ধ এবং গর্ভবতী নারীরাও আক্রান্ত হতে পারেন। ঘন ঘন চুলকানির কারণে কৃমি সংক্রমণ নিদ্রাহীন রাতযাপনে বাধ্য করে যা গর্ভাবস্থায় খুবই বিরক্তিকর এবং অশান্তিদায়ক একটি ব্যাপার।  যাই হোক, এটা ক্ষতিকর কিছু না এবং গর্ভাবস্থায় হওয়া অন্যান্য সাধারণ ইনফেকশনের মতো এটাও প্রতিরোধ করা যায়। গর্ভাবস্থায় কৃমি ঘটিত ইনফেকশনের কারণ, এর উপসর্গ এবং কিভাবে প্রতিরোধ করা যায় তা জানতে…

Read More

ইস্ট ইনফেকশন । গর্ভাবস্থায় কতটুকু ঝুঁকিপূর্ণ

গর্ভাবস্থায় ইস্ট ইনফেকশন

ইস্ট ইনফেকশন কি?  ইস্ট ইনফেকশন যোনীর এক ধরণের ইনফেকশন এবং বিশেষত গর্ভবতী নারীদের ক্ষেত্রে এই ইনফেকশন বেশি লক্ষ্য করা যায়। মূলত ক্যান্ডিডা গোত্রের এক ধরণের আণুবীক্ষণিক ছত্রাক, ক্যান্ডিডা এলবিকানসের (Candida albicans) সংক্রমণের কারণেই এই ইনফেকশন হয়ে থাকে। এই জাতীয় ইনফেকশনকে মনিলিয়াল ভ্যাজাইনিটিস অথবা (monilial vaginitis) বা ভ্যাজিনাল ক্যানডিডিয়াসিস (vaginal candidiasis) নামেও ডাকা হয়। যোনী কিংবা পরিপাক তন্ত্রে কিছু পরিমাণ ইস্ট থাকা তেমন অস্বাভাবিক কিছু না। কিন্তু ইস্ট তখনই সমস্যা হয়ে দাঁড়ায়, যখন এর পরিমাণ এত দ্রুত বৃদ্ধি হতে থাকে যে, তা অন্য অণুজীবগুলিকে দখল করে ফেলে। গর্ভাবস্থায় শরীরে এস্ট্রোজেনের পরিমাণ…

Read More

টক্সোপ্লাজমোসিস (toxoplasmosis) । গর্ভাবস্থায় কতটা ঝুঁকিপূর্ণ

টক্সোপ্লাজমোসিস

টক্সোপ্লাজমোসিস (toxoplasmosis) কি ?  টক্সোপ্লাজমোসিস (Toxoplasmosis) হোল একধরনের ইনফেকশন যা টক্সোপ্লাজমা গণ্ডি ( Toxoplasma gondii)  নামক একধরনের ক্ষুদ্র পরজীবীর মাধ্যমে সংক্রমিত হয়। যদিও স্বাভাবিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্ন কোন ব্যক্তি এই রোগে আক্রান্ত হলে সামান্য শারীরিক অসুস্থতা ছাড়া তেমন কোন বড় ধরনের জটিলতা খুব একটা দেখা যায় না। তবে গর্ভকালীন সময়ে এই রোগটি বেশ কিছুটা ঝুঁকিপূর্ণ, কেননা টক্সোপ্লাজমা গণ্ডি নামক এই ক্ষুদ্র পরজীবী আপনার প্লাসেন্টা (গর্ভফুল) এবং অনাগত সন্তানকেও সংক্রমিত করতে পারে।   বেশ কিছু গবেষণায় উঠে এসেছে যে আমেরিকায় প্রতি বছর ৪ মিলিয়ন শিশুর মধ্যে চারশ থেকে প্রায় চার…

Read More

গর্ভকালীন রক্তশূন্যতা বা এনিমিয়া : কারণ, লক্ষণ ও প্রতিকার

গর্ভকালীন রক্তশূন্যতা বা এনিমিয়া

গর্ভকালীন রক্তশূন্যতা বা এনিমিয়া  আপনি যখন গর্ভবতী, তখন আপনার রক্তস্বল্পতা হতে পারে৷ গর্ভবতী অবস্থায়, আপনার শিশুর জন্যে এবং টিস্যুতে অধিক অক্সিজেন বহনের জন্যে যখন আপনার রক্তে যথেষ্ট সুস্থ লোহিত রক্ত কণিকা থাকে না- একে রক্তস্বল্পতা বা এনিমিয়া বলা হয়। গর্ভকালীন সময়ে আপনার শিশুর দ্রত বৃদ্ধিকে সহায়তা করতে আপনার শরীরে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশী রক্ত তৈরি হতে থাকে। এই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে আপনি যদি বেশী বেশী আয়রণজাতীয় খাবার এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান গ্রহণ না করেন, সেক্ষেত্রে অতিরিক্ত রক্তের জন্যে আপনার শরীর প্রয়োজনীয় যথেষ্ট লোহিত রক্ত কণিকা তৈরি করতে পারে না। গর্ভবতী থাকা…

Read More

গর্ভাবস্থায় ডেঙ্গু : ঝুঁকি ও করনীয়

গর্ভাবস্থায় ডেঙ্গু

বর্ষাকালে এবং আর্দ্র আবহাওয়ায় অন্যান্য পোকার সাথে মশার উপদ্রবটাও কিঞ্চিৎ বেড়ে যায়। যার ফলে মশা বাহিত বিভিন্ন ধরনের রোগ জীবাণু এই ধরনের সময়গুলোতে আমাদেরকে আক্রমণ করে থাকে। মশা-বাহিত বিভিন্ন রোগের মধ্যে ডেঙ্গু অন্যতম একটি ভয়াবহ রোগ যার ফলে আমাদের শরীরে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে, বিশেষ করে গর্ভাবস্থায় এই রোগ মা এবং গর্ভের শিশুর জন্য বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। ডেঙ্গু কি? ডেঙ্গু হল মশা বাহিত একটি রোগ। সময়মত সুচিকিৎসা প্রদান করা না হলে প্রাণঘাতী ইনফেকশন ডেঙ্গু জ্বর আমাদের শরীরের উপরে প্রচুর প্রভাব বিস্তার করে। ডাক্তারি ভাষায় প্রাণঘাতী এই ইনফেকশনকে Dengue haemorrhagic…

Read More

সিকেল সেল ডিজিজ (Sickle cell disease) ও গর্ভাবস্থা

সিকেল সেল ডিজিজ (Sickle cell disease) ও গর্ভাবস্থা

সিকেল সেল ডিজিজ কি ধরনের রোগ? সিকেল সেল ডিজিজ হল এক ধরনের বংশগত রোগ যার কারণে রক্তে কিছু অস্বাভাবিকতা দেখা যায়। সিকেল সেল শুধুমাত্র রক্তের লোহিত কণিকাগুলোর উপর প্রভাব বিস্তার করে। উল্লেখ্য যে লোহিত কণিকা আমাদের রক্তে অক্সিজেন বহন করে থাকে। রক্তের স্বাস্থ্যকর লোহিত কণিকাগুলো আকারে কিছুটা গোল এবং নমনীয় হয় যার ফলে এগুলো একদম ছোট রক্তনালী দিয়েও খুব সহজেই চলাচল করতে পারে। আপনি যদি সিকেল সেল রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েন তাহলে আপনার রক্তের লোহিত কণিকাগুলো শক্ত, আঠালো এবং ইংরেজি বর্ণ “সি” এর মত আকৃতি ধারণ করে। লোহিত কণিকার এই…

Read More