শিশুকে খাওয়ানোর বিষয়ে যে ১১ টি ভুল বাবা মায়েরা করে থাকেন

শিশুকে খাওয়ানোর বিষয়ে যে ১১ টি ভুল বাবা মায়েরা করে থাকেন

সন্তান ঠিকমত খাওয়া দাওয়া না করতে চাইলে সব বাবা-মায়েরাই বেশ দুশ্চিন্তায় ভোগেন। তবে আমরা নিজেরাই শিশুর খাওয়ার প্রতি অনীহার কারণ হয়ে উঠছি কি না সেটা নিয়েও কিছুটা ভাবা প্রয়োজন। কেননা একটু সঠিক পদ্ধতিতে খাওয়ালেই হয়ত শিশু ঠিকমত খাওয়া দাওয়া করবে। শিশুর খেতে না চাওয়াকে একটি বদ অভ্যাসের কাতারে ফেলে দিয়ে, নিজেদের দোষগুলোর দিকে হয়ত অনেক বাবা মায়েরাই তেমন লক্ষ্য রাখেন না। আমরা আজ কথা বলব এমনই কিছু ভুল নিয়ে, যে ভুলগুলো শিশুকে খাওয়ানোর সময় আমরা হরহামেশাই করে থাকি। ১। স্বাধীনভাবে খেতে না দেয়া / খাবার খেতে জোর করা এমনটা প্রায়…

বিস্তারিত পড়ুন

ওটস্‌ (Oats) নিয়ে যত কথা

ওটস্‌ (OATS) নিয়ে যত কথা

ইদানিং অনেক প্যারেন্টসই বাচ্চার প্রথম খাবার হিসেবে ওটস্‌ কেমন হবে সেটি নিয়ে অনেক প্রশ্ন করছেন, যেমন ওটস্‌ (oats) বাচ্চাদের খাওয়ানো যাবে কিনা? এর পুষ্টিগুণ কি? কোনটা খাওয়াবো ? কিভাবে রান্না করা হয় ? বাচ্চাদের ওটস্‌ আলাদা কিনা ইত্যাদি। এর মাঝে সবচেয়ে কমন এবং প্রাসঙ্গিক প্রশ্ন হলো ‘অনেকে ওজন কমানোর জন্য ওটস্‌ খান, এটি কি করে বাচ্চাদের খাবার হয় ?’ আশা করি আমাদের লেখাটি ওটস্‌ (oats)  নিয়ে আপনাদের এসব সংশয় অনেকাংশে দূর করবে। ওটস্‌ (Oats)  কি? যেহেতু আমাদের দেশে উৎপাদিত হয় না, তাই এর কোনো বাংলা নাম জানা নেই, ওটস্‌ (oats)…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুর প্রথম খাবার হিসেবে ওটস (Oats): কিছু রেসিপি

শিশুর প্রথম খাবার হিসেবে ওটস

আপনার শিশুর প্রথম সলিড হিসেবে ওটস অনন্য-অসাধারন একটি খাবার, শিশুর পাঁচ মাস কিংবা ছয় মাসের শুরুর দিকেই আপনি ওটস ট্রাই করে দেখতে পারেন। বাজারে বাচ্চাদের খাবার হিসেবে যেসব টিন-জাত প্রসেসড ওট-মিল পাওয়া যায় সেগুলো এবং সহজে রান্না করা যায় এমন ওটস কিংবা ওটমিল (oatmeal) পরিহার করাই উত্তম, কারণ এগুলোয় পুষ্টিগুন তেমন কিছুই অবশিষ্ট থাকে না। সবচেয়ে ভালো হয় রোলড ওটস কিংবা স্টিল-কাট ওটস পাওয়া গেলে। আজকাল আমাদের দেশে অনেক সুপার-শপ রোলড ওটস আমদানি করছে। রোলড ওটস কিছুটা গোটা গোটা থাকার পুরোপুরি রান্না হতে ১৫ থেকে ২০ মিনিট সময় নেয়। আপনি…

বিস্তারিত পড়ুন

কিভাবে আপনার বাচ্চাকে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে আগ্রহী করে তুলবেন ?

যেভাবে আপনার বাচ্চাকে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে আগ্রহী করে তুলবেন

ভালো খাদ্যাভ্যাস আপনার সন্তানকে দ্রুত শেখা ও বড় হবার শক্তি প্রদান করে। এছাড়া এটা তাকে সুস্থ থাকতে এবং সবসময় পুষ্টিকর খাবার গ্রহনের অভ্যাস গড়ে তুলতে সাহায্য করে। পুষ্টিকর খাদ্যকে আপনার বাচ্চার কাছে আকর্ষণীয় করে তোলার কিছু উপায় আপনি এখানে খুজে পাবেন। খাদ্য বাছাইয়ে আপনার সন্তানকে মতামত দিতে দিন আপনার বাচ্চাকে খাদ্যে আগ্রহী করার সবচেয়ে দুর্দান্ত উপায় হচ্ছে  তাকে পরিবারের খাবার কেনার সিদ্ধান্তে জড়িত করুন। যদিও তার খাবার বাছাই করার মতো বয়স হয়নি, তবে সে অবশ্যই মুদি দোকানে যেতে ভালোবাসবে। তার বোঝার মতো বয়স হলে বাজারের লিস্টটা তার হাতে দিন এবং…

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুর খাবারে এসেনশিয়াল ফ্যাটি এসিডের প্রয়োজনীয়তা, পরিমাণ, উৎস এবং অন্যান্য

শিশুর খাবারে এসেনশিয়াল ফ্যাটি এসিডের

শিশুর সুস্বাস্থ্য আর স্বাভাবিক বৃদ্ধির জন্য ফ্যাটি এসিডের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনার শিশুর জন্য কোন ধরনের এসেনশিয়াল ফ্যাটি এসিড প্রয়োজন এবং কোন ধরনের খাবার থেকে সেটা সঠিক পরিমাণে পাওয়া যাবে জানতে এই আর্টিকেলটি পড়ুন। এছাড়া এই আর্টিকেলে আরো জানতে পারবেন কীভাবে খুব অল্প অথবা খুব বেশি পরিমাণে ফ্যাটি এসিড গ্রহণ না করে বরং সঠিক পরিমাণে ফ্যাটি এসিড গ্রহণ করা যাবে।

বিস্তারিত পড়ুন

শিশুর খাবারে ক্যালসিয়ামের প্রয়োজনীয়তা, পরিমাণ, উৎস এবং অন্যান্য

শিশুর খাবারে ক্যালসিয়ামের প্রয়োজনীয়তা, পরিমাণ, উৎস এবং অন্যান্য

আপনার শিশুর সুস্বাস্থ্য এবং স্বাভাবিক বৃদ্ধির জন্য ক্যালসিয়াম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই আর্টিকেলটি পড়লে আপনি জানতে পারবেন আপনার শিশুর ঠিক কি পরিমাণে ক্যালসিয়ামের প্রয়োজন এবং কোন ধরনের খাদ্য থেকে সে এই ক্যালসিয়ামের চাহিদা পূরণ করতে পারবে। শিশুর জন্য কেন ক্যালসিয়াম খুবই গুরুত্বপূর্ণ? ক্যালসিয়াম হাড় ও দাঁত মজবুত করে এবং নার্ভ ও পেশীর কার্যক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়াও ক্যালসিয়াম শরীরে রক্ত জমাট বাঁধতে বাঁধা দেয় এবং শরীরের সেসব এনজাইমগুলোকে সক্রিয় রাখে যেগুলো খাদ্যকে শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় শক্তিতে রূপান্তরিত করে। শরীরের শতকরা ৯৯ ভাগ ক্যালসিয়াম দাঁত এবং হাড়ে সংরক্ষিত থাকে। আর যেহেতু ছোট শিশুরা প্রতিনিয়তই…

বিস্তারিত পড়ুন

লবণ, চিনি, মধু শিশুর এক বছরের আগে কেন দিতে নিষেধ করা হয়?

লবণ, চিনি, মধু শিশুর এক বছরের আগে কেন দিতে নিষেধ করা হয়?

আমরা আজকাল হরহামেশাই একটি উপদেশ শুনি- “বাচ্চার খাবারে চিনি, লবণ কিংবা মধু দিবেন না”। এই কথাগুলোর যৌক্তিকতা কতটুকু? আমরা অনেকেই কথাগুলো পাত্তা দেইনা- কিছু মা এর মন্তব্য “ আমি আমার বাচ্চাকে এগুলো সবই দিয়েছি এক বছর বয়সের আগেই- কই কিছু তো হয়নি” , “আরে কিছু হবেনা, এগুলো বাড়াবাড়ি, ডাক্তাররা কত কথাই বলে” কিংবা “গুগল কত কিছুই বলবে”।  এই মন্তব্যকারীদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই,শরীরের সব ক্ষতি সবসময় দৃষ্টিগোচর হয়না। কিছু ক্ষতির ফল সুদূরপ্রসারী, তাৎক্ষনিকভাবে তা বোঝা যায়না, আবার কিছু তাৎক্ষনিক রিঅ্যাকশন কারো হয়,  কারো হয়না। যেমন- একজন ধূমপায়ী বলতেই পারেন “আমি গত…

বিস্তারিত পড়ুন

বাচ্চা কিছুই খায় না ! ওকে কি খাওয়াতে পারি । ডাঃ মিশু তালুকদার 

বাচ্চা কিছুই খায় না! ওকে কি খাওয়াতে পারি

চেম্বারে বা হাসপাতালে প্রায়ই কিছু প্রশ্ন মায়েরা করে থাকে, স্যার, আমার বাচ্চা কিছুই খায় না! ওকে কি খাওয়াতে পারি? আমার বাচ্চা একদম শুকিয়ে যাচ্ছে! স্যার,ওর তো এখন ৬মাস বয়স,ওকে কি সেরিলাক বা পটের দুধ খাওয়ানো যাবে?? শিশুর খাবার নিয়ে কথা বলতে গেলে, আমরা চাইলে শিশুর খাবারকে দুইভাগে ভাগ করে ফেলতে পারি!! ১. জন্মের ৬ মাস পর্যন্ত ২. শিশুর ৬ মাস বয়সের পরে জন্মের ৬মাস পর্যন্ত এইসময় শুধুমাত্র মায়ের দুধ খাওয়ালেই চলে। তবে এই মায়ের দুধ খাওয়ানোর কিছু নিয়ম অবশ্যই আছে। মা অবশ্যই বসে দুধ খাওয়াবেন। শুয়ে দুধ না খাওয়ানোই ভাল। বসে…

বিস্তারিত পড়ুন

মাতৃকথন – বাচ্চা কিছুই খায়না

মাতৃকথন - বাচ্চা কিছুই খায়না

লিখেছেনঃ ফারিনা মাহমুদ শুরু করি সত্য ঘটনা দিয়ে । আমার ছেলের বয়স যখন ১৬ মাস, ওকে নিয়ে গেলাম আর্লি চাইল্ডহুড সেন্টারে । বাচ্চা জন্মের পর থেকে ৫ বছর বয়স পর্যন্ত এই সেন্টারে শিশুর স্বাভাবিক শারীরিক ও মানসিক বিকাশ সংক্রান্ত রুটিন চেকাপ করানো যায়, প্রয়োজনে এপয়েন্টমেন্ট নিয়ে নার্সদের সাথে বিশেষ সমস্যা নিয়ে কথা বলা যায় মা ও বাচ্চা উভয়ের ব্যাপারে । ওরা পরামর্শ দেবার পাশাপাশি অন্যান্য ক্লিনিকে রেফার করে দিতে পারে । এখানে যেকোনো সমস্যা নিয়েই যাওয়া যায় । যেমন ধরেন বাচ্চার ঘুমের রুটিন ঠিক করতে পারছি না, রাতে কান্না করে,…

বিস্তারিত পড়ুন

বাচ্চাকে জোর করে খাওয়ানোর কুফল

বাচ্চাকে জোর করে খাওয়ানোর কুফল

সব শিশুদের মধ্যে একটা সাধারণ সমস্যা দেখা যায়। সেটা হলো খাবার নিয়ে বায়নাক্কা করা! কোনো কোনো শিশু নিজের পছন্দের খাবার ছাড়া আর কিছুই খেতে চায় না। আবার কোনো শিশু সব কিছুতেই নাক সিঁটকায়। কেউ আছে খায় বটে, তবে পুরো খাবার না খেয়েই উঠে পড়ে। মোটকথা, বেশির ভাগ বাচ্চারাই খাবার নিয়ে ঝামেলা করে! বাচ্চা কেন খেতে চায়না? বেশির ভাগ মায়েরই অভিযোগ—বাচ্চা খেতে চায় না। কিছু কিছু রোগের কারণে শিশুদের রুচি কমে যেতে পারে, কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রে ব্যাপারটা অত জটিল কিছু নয়। অনেক ক্ষেত্রেই এ বিষয়ে মা-বাবার উৎকণ্ঠা থাকে। হয়তো শিশু…

বিস্তারিত পড়ুন