সপ্তাহ অনুযায়ী গর্ভাবস্থা । সপ্তাহ – ৪

অভিনন্দন!! আপনি যদি জানতে পারেন যে আপনি গর্ভবতী তাহলে আপনি অনেকের চাইতে ভাগ্যবতী।কারণ অনেকেই মাত্র ৪ সপ্তাহে গর্ভধারণের সুসংবাদটি পান না। এ পর্যায়ে শিশুর অঙ্গ-সংস্থানের উন্নয়ন শুরু হয় যা অবশেষে মুখমন্ডল, ঘাড় ও গলা গঠন করে। হৃদপিন্ড এবং রক্তবাহী শিরা ও ধমনীর উন্নয়নও চলতে থাকে। ফুসফুস, পাকস্থলি ও যকৃতের ঊন্নয়ন শুরু হয়। এই সময় আপনার ভ্রুনের সাইজ একটি পপি বীচির সমান থাকে। এর দুটো স্তর থাকে যা থেকে তার সব অঙ্গ প্রত্যঙ্গ বিকশিত হয়।

আপনার শিশু এখন এক ইঞ্চির ১/২৫ ভাগ দৈর্ঘের। আপনি তার চোখ, কান, বা মুখ দেখতে পাবেন না,আপনার শিশুর দেখার, শোনার, বলার এবং শারীরিক কাঠামো গঠন শুরু হয়েছে। আপনার ছোট ভ্রূণ টি খুব তাড়াতাড়ি হাতের আঙুল এবং পায়ের আঙুলে পরিণত হবে।

কোষের উপরের স্তরে রয়েছে খাঁজ। কোষের ভাঁজ এবং কাছাকাছি ফাঁপা টিউব যা নিউরাল টিউব নামে পরিচিত। এটিই শিশুর মস্তিস্ক এবং মেরুদণ্ডে পরিণত হবে। তাই টিউবটির একটি মাথার অংশ এবং লেজের মত অংশ আছে।

আগামী পাঁচ সপ্তাহ আপনার জন্য সংকটপূর্ন কারন এসময় শিশুর বৃদ্ধি ঘটে। এ সময় রুডিমেন্ট্রারি প্লাসেন্টা এবং আম্বিলিক্যাল কর্ডের বৃদ্ধি ঘটে যা মায়ের শরীর থেকে অক্সিজেন এবং অন্যান্য পুষ্টি শিশুর শরীরে প্রেরন করে।

 

আপনার শারীরিক পরিবর্তন

এ সপ্তাহে করনীয়

  • Gynecologist এর সাথে দেখা করুন এবং পরামর্শ নিন।
  • অতিরিক্ত গরমে যাবেন না । শারীরিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি বাচ্চার গঠনে অন্তরায় হতে পারে।
  • Healthy এবং balanced diet এর অভ্যাস গড়ে তুলুন।
  • ফলিক এসিড নিতে ভুলবেন না
  • মনে রাখবেন গর্ভধারণের ক্ষেত্রে মায়েদের সাথে সাথে বাবাদের ও ভূমিকা পালন জরুরী। এ সময়টাতে বাবাদের উচিত সবসময় মায়েদের mental support দেয়া।
  • গর্ভাবস্থায় পেটের দাগ কমানোর জন্য গর্ভাবস্থার শুরু থেকেই পেটে অলিভওয়েল মাখতে পারেন।
  • ব্যায়াম আপনার ভাল পেশী, শক্তি এবং সহনশীলতা বিকশিত করতে সাহায্য করবে। এটা আপনার অতিরিক্ত ওজন কমাতে সহায়তা করবে (যদি আপনার ওজন বেশী হয়ে থাকে) অথবা ওজন নিয়ন্ত্রনে রাখতে সহায়তা করবে যা আপনার গর্ভকালীন সময়ে খুব জরুরী। ব্যায়াম আপনার গর্ভকালীন সময়ের পর খুব তাড়াতাড়ি আগের অবস্থায় নিয়ে আসতে সাহায্য করবে। আপনি আপনার সহনশীল ব্যায়াম পছন্দ করতে পারেন। সাঁতার বা হাঁটা চলা যাবে না এমনটা নয়। পরিমিতভাবে আপনি সাঁতার বা হাঁটাচলাও করতে পারেন। এছাড়াও আপনি কিছু সহজ যোগব্যায়াম করতে পারেন, গর্ভাবস্থার জন্য বিশেষ যোগব্যায়াম আছে। গর্ভাবস্থায় শরীরচর্চা সম্পর্কে জেনে নিন

 

 

“প্রতিটি জন্মই হোক পরিকল্পিত, নিরাপদ হোক মাতৃত্বের প্রতিটি মুহূর্ত ”

<<গর্ভাবস্থা সপ্তাহ ৩
গর্ভাবস্থা সপ্তাহ ৫>>

তথ্যসূত্রঃ
maya.com.bd/content/web/language/bn/
babycenter.com

 

 

Related posts

Leave a Comment