শিশুর ফুড অ্যালার্জি বা খাবারে অ্যালার্জি

শিশুর ফুড অ্যালার্জি বা খাবারে অ্যালার্জি

শিশুর ফুড অ্যালার্জি বা খাবারে অ্যালার্জি কেন হয়? কোন কিছু খাওয়ানোর পরে খাবারের কোন উপাদানের প্রতি বাচ্চার শরীরের প্রতিরক্ষা সিস্টেম (Immune System) যখন কোন ধরনের অস্বাভাবিক প্রতিক্রিয়া দেখায় এবং বিভিন্ন অ্যান্টিবডি উৎপন্ন করে যখন তা প্রতিরোধের চেষ্টা করে তখন সেটাকে ফুড অ্যালার্জি বলা হয়। খাবারের এসব উপাদান বাচ্চার শরীরের জন্য ক্ষতিকর না হওয়া সত্ত্বেও তার ইমিউন সিস্টেম এসব উপাদানের প্রতি বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখাতে পারে। আরেকটু সহজ করে বলতে, যখন বাচ্চাকে এমন কিছু খাওয়ানো হয় যেগুলোর প্রতি সে অ্যালার্জিক, তৎক্ষনাৎ বা অল্প কিছুক্ষণের মধ্যেই তার শরীর ইম্যুন সিস্টেমে সঙ্কেত পাঠায় তাকে…

Read More

ঘুমানোর সময় শিশুকে কিভাবে শোয়ানো নিরাপদ

ঘুমানোর সময় শিশুকে কিভাবে শোয়ানো নিরাপদ

বাসায় যদি নবজাতক থাকে, তাহলে শিশুর নিরাপদ ঘুমের অবস্থান এবং সাডেন ইনফ্যান্ট ডেথ সিন্ড্রোম বা SIDS এর ঝুঁকি কমানোর উপায় সম্পর্কে জানাটা সবার জন্য জরুরি, যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বছর প্রায় ২৫০০ শিশুর জীবন কেড়ে নেয়। প্রায় ৮০% আকস্মিক ও অপ্রত্যাশিত শিশু মৃত্যুর কারণ হল সিডস এবং এই ঝুঁকি এড়ানোর সবচেয়ে কার্যকর উপায় হল এক বছরের কম বয়সী শিশুকে ঘুমানোর সময় চিৎ করে শোয়ানো (supine position)। শিশুর ঘুমানোর নিরাপদ এবং আদর্শ অবস্থান নিয়েই আজকের আলোচনা।   শিশুর ঘুমের অভ্যাস যা অপ্রত্যাশিত মৃত্যু বা Sudden Unexpected Death In Infancy (SUDI) এর…

Read More

শিশুর অ্যালার্জি

শিশুর অ্যালার্জি

বড়দের চেয়ে শিশুদের অ্যালার্জিজনিত অসুখ-বিসুখ বেশি হয়ে থাকে। কারণ শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকে। অ্যালার্জিতে হাঁচি থেকে শুরু করে শ্বাসকষ্ট হতে পারে। অ্যালার্জি সামান্য অসুবিধা করে আবার কারও জীবনকে দুর্বিষহ করে তোলে।   এ্যালার্জী কি? আমাদের শরীরের ইমিউন সিস্টেম ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়া থেকে আমাদের শরীরকে রক্ষা করার কাজে নিয়োজিত। তবে মাঝে মাঝে এই ইমিউন সিস্টেম এমন কিছু উপাদানের প্রতি প্রতিক্রিয়া দেখায় বা তা প্রতিরোধের চেষ্টা করে যেগুলো আমাদের শরীরের জন্য তেমন ক্ষতিকারক নয়। এই উপাদানগুলোকে বলা হয় অ্যালার্জেন। যখন আমাদের শরীর এসব অ্যালার্জেনের বিরুদ্ধে প্রতিক্রিয়া করে তখন অ্যালার্জিক রিঅ্যাকশন…

Read More

নবজাতকের ঘুম সম্পর্কে ৫ টি প্রয়োজনীয় তথ্য যা হয়তো আপনার অজানা

নবজাতকের ঘুম সম্পর্কে ৫ টি প্রয়োজনীয় তথ্য যা হয়তো আপনার অজানা

নতুন মা-বাবা দের জন্য তাদের ছোট্ট শিশুর ঘুম হলো সবচেয়ে কিংকর্তব্যবিমূঢ় অবস্থা। অনেক নির্ঘুম রাত পার করে তবেই সদ্য হওয়া নতুন মা বাবা বুঝতে পারেন যে শিশুর ঘুম আর আমাদের ঘুমের মাঝে বিস্তর পার্থক্য। জেনে নিন এধরনের ৫ টি তথ্য-   কিছু শিশু সারা রাত জেগে থাকে আর সারা দিন ঘুমায় চার্লস শুবিন, বাল্টিমোরের মের্সি ফ্যামিলি কেয়ারের পেডিয়াট্রিক্সের পরিচালক বলেন , অনেক নবজাতক আছে যারা জন্ম নেয় তাদের দিন এবং রাত্রির সম্পূর্ণ বিপরীতরূপে। এই  ছোট্ট রাত প্যাঁচারা দিনের সময়টা বেশিরভাগ ঘুমিয়ে কাটায় আর রাতেরবেলা সতর্ক হয়ে জেগে থাকে।আপনার শিশুটি যখন…

Read More

৯-১২ মাস বয়সী শিশুর বিকাশে যেভাবে সাহায্য করবেন

৯-১২ মাস বয়সী শিশুর বিকাশে যেভাবে সাহায্য করবেন

৯-১২  মাসে শিশুর পরিবর্তনীয় বৈশিষ্ট্য বাবা মা তাদের শিশুর প্রথম ও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষক । কিন্তু তাই বলে তাকে কিছু শেখাবার জন্য আপনার নিজেকে কোনো চাপের মধ্যে ফেলতে হবেনা। শিশুদের ব্যাপারে বিস্ময়কর যে জিনিস সেটা হচ্ছে তারা তাদের পারিপার্শ্বিক পরিবেশ থেকেই শিখতে থাকে। আপনি যখন গান করেন, কথা বলেন, এবং আপনার শিশুর সাথে খেলা করেন, তার মস্তিষ্ক সেগুলোর সাথে এমন সমন্বয় ঘটিয়ে থাকে যে সে ভাষা, অঙ্ক, সঙ্গীত এবং যুক্তিবিদ্যা শিখতে সুযোগ পায়। আপনি যখন আপনার শিশুকে সান্ত্বনা দেন, আপনি তাকে জানতে দেন যে এ পৃথিবী তার জন্য নিরাপদ। যত…

Read More

বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েরা যে সব খাবার খেলে বাচ্চার অসুবিধা হতে পারে

বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েরা যে সব খাবার খেলে বাচ্চার অসুবিধা হতে পারে

নবজাতক শিশুর খাবার মানেই মায়ের বুকের দুধ। জন্মের পর নবজাতক শিশুকে মায়ের দুধ ছাড়া অন্য কোনো খাবার দেওয়া উচিত নয়। এ সময়ে শিশুর পুষ্টি চাহিদা মেটানোর জন্য মায়ের দুধই যথেষ্ট। বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েদের খাবার নিয়ে অনেক ধরণের উপদেশ শোনা যায়। এগুলোর বেশিরভাগই ভুল। মায়ের খাবারের কারণে বুকের দুধের গুনগত মানের কোন পরিবর্তন হয়না। এমনকি মা যদি দু একদিন উপোষ থাকেন তাতেও বুকের দুধের গুণগত মান এবং পরিমাণ অটুট থাকে। তবে হ্যাঁ, মায়ের স্বাস্থ্য ঠিক রাখার জন্য মায়েদের পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েদের জন্য নিষিদ্ধ খাবারের তালিকা…

Read More

৯ থেকে ১২ মাস বয়স পর্যন্ত শিশুর ঘুমের ধরণ ও করণীয়

৯ থেকে ১২ মাস বয়স পর্যন্ত শিশুর ঘুমের ধরণ ও করণীয়

৯-১২ মাস বয়সে শিশুর ঘুমের ধরন কেমন হতে পারে ৯ থেকে ১২ মাস বয়সী শিশুরা সাধারণত দিনে ২-১ ঘন্টার  হালকা ঘুম সহ প্রায় ১৪ ঘন্টা ঘুমায়। কিছু শিশু বিশেষজ্ঞরা লক্ষ্য করেছেন যে, এই বয়সের শিশুদের  ঘুমের  ধরনগুলি ব্যাপকভাবে পরিবর্তিত হতে পারে। এটা হতে পারে, তাদের ক্রম ধারাবাহিক পরিবর্তনের জন্য অথবা বাচ্চারা সলিড খাবার হতে বেশী পরিমান ক্যালোরি গ্রহণ করে বলে। ঘুম প্রশিক্ষণের জন্য আপনার শিশু কি প্রস্তুত?  যদি আপনার বাচ্চা একটি ঘুমের ধরনে অভ্যস্ত না হয়, যা আপনার পরিবারিক জীবনের সাথে খাপ খায়, তাহলে ঘুম প্রশিক্ষণের এখনি সঠিক সময়। ঘুম…

Read More

৬ থেকে ৯ মাস বয়স পর্যন্ত শিশুর ঘুমের ধরণ ও করণীয়

৬ থেকে ৯ মাস বয়স পর্যন্ত শিশুর ঘুমের ধরণ ও করণীয়

৬ থেকে ৯ মাস বয়সের শিশুদের ঘুমের আদর্শ সময়সূচী কেমন হতে পারে  ৬ থেকে ৯ মাসের বেশিরভাগ শিশু দিনে ১৪ -১৫ ঘন্টা ঘুমায় (দিনে এবং রাতে মিলিয়ে)  এবং এ সময় তারা একবারে টানা দীর্ঘ সময় ঘুমাতে সক্ষম হয়। এ বয়সে অনেক শিশু দিনের বেলায় ঘুম কমিয়ে ৩ থেকে ২ বার ঘুমায়। একবার সকাল বেলা এবং একবার দুপুর বেলা।   কোন বয়স থেকে শিশুরা সারারাত ঘুমাতে শুরু করে? সাধারণত ৬ মাস বয়সে শিশুরা সারারাত ঘুমাতে শুরু করে, যদিও কিছু শিশুর বেলায় সেটা নাও হতে পারে। যদি এখন আপনার শিশু রাতে ৮…

Read More

৩ থেকে ৬ মাস বয়স পর্যন্ত শিশুর ঘুমের ধরণ ও করণীয়

৩ থেকে ৬ মাস বয়স পর্যন্ত শিশুর ঘুমের ধরণ ও করণীয়

৩ থেকে ৬ মাস বয়সের শিশুদের ঘুমের ধরণ কেমন হতে পারে  বেশিরভাগ শিশুরা ৩ থেকে ৬ মাস বয়সে রাতে এবং দিনে সব মিলিয়ে ১৫-১৬ ঘন্টা ঘুমায়। সাধারণত,  ৪ মাস কিংবা তার কাছাকাছি সময়ে শিশুদের নিয়মিত ঘুম ও জেগে উঠার ধরন গড়ে উঠতে শুরু করে এবং সেই সময় তাদের রাতে দুধ খাওয়ার অভ্যাস কমে আসে। এর অর্থ অবশ্য এই নয় যে, আপনি আপনার ৪ কিংবা ৫ মাসের শিশুর ঘুমের ব্যাপারে কড়াকড়ি আরোপ করবেন।  এরিমধ্যে হয়তো আপনার শিশুর এমন ঘুমের স্বভাব গড়ে উঠতে পারে যা আপনার পারিবারিক জীবনের জন্য মানানসই। কিন্তু যদি…

Read More

জন্ম থেকে ৩ মাস বয়স পর্যন্ত শিশুর ঘুমের ধরণ ও করণীয়

জন্ম থেকে ৩ মাস বয়স পর্যন্ত শিশুর ঘুমের ধরণ ও করণীয়

জন্ম থেকে ৩ মাস বয়স পর্যন্ত সাধারণত নবজাতকের ঘুমের ধরণ কেমন হয়?  জন্ম থেকে ৩ মাস বয়স পর্যন্ত নবজাতকরা দীর্ঘসময় ঘুমায়- সাধারণত দিনে ১৬-১৭ ঘন্টা ঘুমাতে পারে। তবে জন্মের প্রথম কয়েক সপ্তাহে বেশিরভাগ শিশু দিনে কিংবা রাতে একবারে দুই থেকে চার ঘন্টার বেশি ঘুমায় না। শিশুদের দীর্ঘসময় ও অনিয়মিত ঘুমের ফলে আপনার সময় সূচি হয়ে উঠে ক্লান্তিকর এবং অনিয়মিত। একজন সদ্য মা হিসেবে আপনাকে হয়তো রাতে বারবার উঠতে হতে পারে শিশুর কাপড় বদলানো, দুধপান ও তাকে শান্ত করার জন্য।   কেন নবজাতকের ঘুমের ধরণ অনির্দিষ্ট শিশুদের নিয়মিত ঘুমের সাইকেল বড়দের চেয়ে…

Read More