কিভাবে বুঝবেন আপনার বাচ্চা সলিড খাবার খাওয়ার জন্য প্রস্তুত?

কিভাবে বুঝবেন বাচ্চা সলিড খাবার খাওয়ার জন্য প্রস্তুত?

আপনার বাচ্চার জন্য সলিড খাবার খাওয়া শুরু করা একটা বড় পদক্ষেপ। যখন বাচ্চার বয়স ৬ মাস হয়ে যায় তখন বাচ্চার কিছু আচরণ দেখে আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন আপনার শিশু সলিড খাবার খাওয়ার জন্য তৈরী কিনা৷ যে শিশু সলিড খাবার খাওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকে সে সাধারণত এই কাজগুলি করতে পারে:

  • সে মাথা উপরদিকে তুলতে পারে৷ সলিড খাবার খাওয়ার জন্য বাচ্চার দৃঢ়ভাবে মাথা সোজা করে রাখতে পারাটা জরুরী।
  • হেলান দেওয়ার সুবিধা পেলে, সে ভালো করে বসতে পারে৷ প্রথমে হয়ত আপনার শিশুকে কোলে নিয়ে বসাতে হবে৷ যখন বাচ্চা আরেকটু ভালোভাবে বসতে শিখবে তখন তাকে উঁচু চেয়ারে বসাতে পারেন।
  • সে চিবানোর মত মুখভঙ্গী করবে৷ আপনার শিশু তার মুখের ভিতরে খাবার নিয়ে তা মুখের পেছনে নিতে ও গিলতে পারা জানতে হবে। বাচ্চা যখন ভালভবে গিলতে শিখবে তখন খেয়াল করে দেখবেন তার মুখে থেকে লালা কম ঝরবে। এ সময় বাচ্চার একটি বা দুটি দাঁতও উঠে যেতে পারে
  • বাচ্চার ওজন ঠিকভাবে বাড়বে। বেশীরভাগ বাচ্চাই জন্মের দ্বিগুণ ওজন লাভ করার সাথে সাথে সলিড খাবার খাওয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে যায়। বাচ্চার ৬ মাস বয়স নাগাদ বাচ্চার ওজন জন্মের প্রায় দ্বিগুণ হয়।
  • আপনি কী খাচ্ছেন সেই ব্যাপারে সে উৎসুক হবে৷ যখন শিশুরা আপনার খাবারের দিকে তাকায় ও সেদিকে হাত বাড়িয়ে দেয় তার মানে সে শক্ত খাবার খাওয়ার জন্য প্রস্তুত৷
  • তার শরীরের ওজন স্বাস্থ্যকর৷ বেশির ভাগ শিশুর জন্মের সময় যা ওজন থাকে তার দ্বিগুণ ওজন হয়ে গেলে তারা সলিড খাবার খাওয়ার জন্য তৈরী হয়ে যায়৷ এটা সাধারণত প্রায় 6 মাস বয়সে হয়৷
  • বাচ্চা খাবারের দিকে তাকাতে, তা মুঠি করে ধরতে এবং নিজের মুখে দিতে পারে।

৬ মাস বয়সের আগেই আপনার শিশুর এই লক্ষণগুলি হয়ত আপনার চোখে পড়ে৷ সেক্ষেত্রও বিশেষজ্ঞদের মতে তাকে সলিড খাবার খেতে দেওয়ার আগে তার ৬ মাস বয়স হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করা নিরাপদ৷ ততদিনে তার হজমশক্তি আরো মজবুত হয়ে যায়৷ তার অর্থ এই যে তার পেটের গোলমাল বা খাবারে খারাপ প্রতিক্রিয়া হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে৷

এ সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করলে বাচ্চার খাবার থেকে অ্যালার্জি হওয়ার সম্ভাবনা ও কম থাকে।  বিশেষ করে যদি পরিবারের কারো অ্যালার্জির বা coeliac disease এর ইতিহাস থাকে তবে ৬ মাসের আগে কোনভাবেই সলিড শুরু করা উচিত নয়। শস্যের গ্লুটেনের কারণে coeliac disease বাড়তে পারে।

কিছু কিছু লক্ষণ দেখে অনেকেই মনে করেন বাচ্চা সলিড খাওয়ার জন্য তৈরি, যেমন-

  • হাতের মুঠি চাবানো
  • রাতের বেলা জেগে যাওয়া।
  • খাবারের জন্য কান্না কাটি করা

এসব আচরণ বাড়তে থাকা সব বাচ্চাই করে। এটার মানে এই নয় যে সে সলিড খাবার খাওয়ার জন্য প্রস্তুত।আপনি যদি বাচ্চাকে ৬ মাসের আগেই সলিড খাওয়ানোর পরিকল্পনা করেন তবে এর আগে অবশ্যই একবার ডাক্তারের সাথে কথা বলে নেয়া উচিত।

তবে মনে রাখতে হবে বাচ্চা যদি ৬ মাস বয়সে সলিড খাবার খেতে না চায় তাহলে ঘাবড়ে যাওয়ার কিছু নাই। শুধুমাত্র বুকের দুধ খেয়েই ৯-১২ মাস পর্যন্ত বাচ্চার পর্যাপ্ত বৃদ্ধি হতে পারে। কখনো কখনো ৬ মাস বয়সের পর বাচ্চা মায়ের দুধ থেকে যে জিঙ্ক ও আয়রন পায় তা তার  জন্য পর্যাপ্ত হয়না।  সে ক্ষেত্রে বাচ্চা বাড়তি খাবার থেকে সে চাহিদা পূরণ করে। বাচ্চা যদি সলিড খেতে না চাই তবে সে পর্যাপ্ত পুষ্টি পাচ্ছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য বাচ্চার বৃদ্ধির দিকে নজর রাখুন এবং তাকে তার জন্য উপযুক্ত সলিড খাবার দেয়ার চেষ্টা চালিয়ে যান।

সবার জন্য শুভ কামনা।

তথ্যসূত্রঃ 

babycenter.com

Related posts

Leave a Comment